মাগুরায় পিপিসহ ৪পদে নতুন নিয়োগ

মাগুরানিউজ.কমঃ 

বিশেষ প্রতিবেদক-

মাগুরা জেলা ও দায়রা আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটার (পিপি)সহ ৪টি পদে নতুন করে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সলিসিটর বিভাগের সহকারী সচিব মোঃ আব্দুছ ছালাম মন্ডলের স্বাক্ষরিক একটি চিঠি  বৃহস্পতিবার দুপুরে মাগুরা জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাছে এসেছে।

জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বর্তমান মাগুরা জেলা ও দায়রা আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটার এ্যাডভোকেট কামাল হোসেনকে অব্যহতি দিয়ে সেখানে পিপি হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে মাগুরা জেলা আইনজীবী সমিতির সিনিয়র আইনজীবী এ্যাভোকেট কাজী এস্কেন্দার আজম বাবলুকে।

এছাড়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পাবলিক প্রসিকিউটার হিসেবে এ্যাডভোকেট আব্দুর রাজ্জাক, অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটার হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন এ্যাডভোকেট হারুন অর রশিদ ও সৈয়দ ফিরোজুর রহমান।

নতুন নিয়োগ পাওয়া পাবলিক প্রসিকিউটার এ্যাডভোকেট কাজী এস্কেন্দার আজম বাবলু ১৯৮৪ সালে মাগুরা জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্যভুক্তির পর থেকে সুনামের সাথে আইন পেশায় জড়িত রয়েছেন।

মাগুরায় ইয়াবা বিক্রিকালে পুলিশসহ আটক ২

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক-

মাগুরায় ইয়াবা বিক্রির সময় এক কনস্টেবলসহ দুইজনকে আটক করেছে জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। আটক ওই পুলিশ কনস্টেবলের নাম আবুল বাশার। তিনি মাগুরা সদর উপজেলার হাজিপুর পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত।

কনস্টেবল আবুল বাশারকে আটকের সময় তার সঙ্গে থাকা এক চিহ্নিত ইয়াবা কারবারিকেও ধরা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মাগুরা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফরের পরিদর্শক আবদুর রহিম।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার রাতে কনস্টেবল আবুল বাশার (কং-৮৩৫) সদর উপজেলার হাজিপুর গ্রামের মোমিন শেখের ছেলে মাদক ব্যবসায়ী রাজিব হোসেনকে নিয়ে শহরের কাঁচাবাজার এলাকায় যায়।

পুলিশ সদস্য আবুল বাশার ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার বড়দিয়া গ্রামের আবদুল জব্বারের ছেলে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, আবুল বাশারের সহযোগী রাজিব হোসেন মাগুরার একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী এবং তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

এ বিষয়ে মাগুরা পুলিশ সুপার খান মোহাম্মদ রেজোয়ান বলেন, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের হাতে একজন পুলিশ সদস্য আটকের খবর শুনেছি। এ বিষয়ে থানায় মামলা দেয়া হলে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তবে শৃঙ্খলা বিরোধী কাজে জড়িত থাকায় বেশ আগে থেকেই ওই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা চলমান রয়েছে বলে জানা গেছে।

এ লজ্জা রাখি কোথায়?

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক-

এ আমরা কোথায় তলিয়ে যাচ্ছি? অনাচার, অশ্লীলতা, বিকৃত যৌনাচার, যৌন নিপীড়নের মতো ঘৃণ্য ঘটনার পৌনঃপুনিকতায় আমরা যেন তলিয়ে যাচ্ছি এমন এক অন্ধকারাচ্ছন্নময় সমাজের দিকে। ধুলোয় লুটোচ্ছে শান্তি ও নিরাপত্তা। মানবিক ও সামাজিক মূল্যবোধের সৃষ্টি হয়েছে তীব্র সংকট। বিশেষ করে বলতে হয় নারীর প্রতি সহিংসতা ও যৌন নিপীড়নের কথা। পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ হয়ে উঠেছে যে চলন্ত বাসে, ট্রেনে ধর্ষণ হচ্ছে; ধর্ষণের পর হত্যা করা হচ্ছে এমনকি পুড়িয়ে মেরে ফেলা হচ্ছে; পিতৃতুল্য শিক্ষক দ্বারা মেয়ে শিশুকে ধর্ষণ বা চেষ্টা করার মতো ঘৃণ্য সংবাদও আমাদের শুনতে হচ্ছে।

মাগুরায় পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় মাাগুরা সদর থানা পুলিশ শহিদুজ্জামান মুন্সি ওরফে সনো মুন্সি (৬৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে। শহিদুজ্জামান মুন্সি শহরের ভায়না এলাকার ইসহাক মুন্সির পুত্র। তিনি স্থানীয় আছিয়া খাতুন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক।

মাগুরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি, অপারেশন) সাইদুর রহমান জানান, গত ২৪ নভেম্বর দুপুরে শহরের ভায়না এলাকার শহিদুজ্জামান সনো মুন্সি তার প্রতিবেশির পাঁচ বছর বয়সী এক শিশুকে মিষ্টি খাওয়ানো ও টাকা দেওয়ার লোভ দেখিয়ে তার ঘরে নিয়ে ধর্ষণ চেষ্টা করেন। শিশুটি ভয়ে চিৎকার দিয়ে কান্নাকাটি করে ছুটে বাড়ি এসে বিষয়টি তার মাকে জানায়। এ ঘটনার পর অভিযুক্ত ব্যক্তি বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে বিষয়টি বিভিন্ন মাধ্যমে মীমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।

পরে শিশুটির মা (২৬ নাভেম্বর) মঙ্গলবার তার শিশু কন্যাকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। পুলিশ মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে শহিদুজ্জামান সনো মুন্সিকে ভায়না এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃত সনো মুন্সি পুলিশের কাছে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

ভাবতেই অবাক লাগে, একজন শিক্ষক যিনি কিনা শিক্ষাগুরু তিনি কীভাবে এমন ঘৃণ্য কাজ করতে পারেন। এদের জন্য আজ বিব্রত পরিস্থিতির মধ্যে আছেন আদর্শবান শিক্ষকরা। অন্যদিকে আস্থাহীনতায় ভুগছেন অভিভাবকরা।

মাগুরায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে ট্রাফিক সচেতনতা সপ্তাহ

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক-

সেবাই পুলিশের ধর্ম-এই প্রতিপাদ্য নিয়ে মাগুরায় মঙ্গলবার ট্রাফিক সচেতনতা সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি, আলোচনা সভা ও প্রচারপত্র বিতরন করেছে জেলা পুলিশ।

এ উপলক্ষে মাগুরা জেলা পুলিশের উদ্যোগে শহরের ভায়না মোড় থেকে একটি র‌্যািল বের হয়। র‌্যালিটি সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুলিশ লাইনসে গিয়ে শেষ হয়।

সেখানে মাগুরা পুলিশ সুপার খান মুহম্মাদ রেজোয়ানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্তি পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু নাছির বাবলু, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি আব্দুল ফাত্তাহ, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক শামিম খান, অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান, জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ইমদাদ হোসেন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা, সড়কে শৃংখলা বজায় রাখতে গণসচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি সড়ক আইন ২০১৮ বাস্তবায়নের মাধ্যমে সড়কে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সকলের প্রতি আহবান জানান।

প্রতিপক্ষের হামলায় ভাটাশ্রমিক নিহত, বাড়িতে আগুন

মাগুরায় দুদকের গণশুনানী অনুষ্ঠিত

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক-

মাগুরায় সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বৃহস্পতিবার সকালে দুর্নীতি দমন কমিশন এবং জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে গণশুনানী অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলার বিভিন্ন এলাকার ৩০ জন তাদের লিখিত অভিযোগ এ গণশুনানীতে উপস্থাপন করেন।

মাগুরা জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মোশারফ হোসেনের সভাপতিত্বে আয়োজিত গণশুনানীতে দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার (অনুসন্ধান) ড. মো. মোজাম্মেল হক খান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শুনানী গ্রহণ করেন।

মাগুরা জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলমের সঞ্চালনায় জেলার ২৫০ শয্যার হাসপাতালের চিকিৎসকদের ক্লিনিক বাণিজ্য, দুর্নীতির মাধ্যমে অবৈধ সম্পদ অর্জন, কারাগারে নি¤œমানের খাদ্য সরবরাহ, কৃষকদের কাছ থেকে ধান চাল সংগ্রহে সিন্ডিকেট বাণিজ্য, ভুমি অফিসে নানা অনিয়ম, সাব রেজিষ্ট্রারদের দুর্নীতির মাধ্যমে দলিল লেখকদের অবৈধ অর্থ উপার্জন, বিআরটিএর হয়রানি, দালালদের দৌরাত্ম, সেটেলমেন্ট অফিসে নানা অনিয়ম দুর্নীতির বিষয়ে অভিযোগ উত্থাপিত হয়।

শুনানির আগে উপস্থিত গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তাদের মধ্যে পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজোয়ান, দুদক খুলনা অঞ্চলের পরিচালক আব্দুল গফফার, পৌর মেয়র খুরশীদ হায়দার টুটুল, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু নাসির বাবলু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

উত্থাপিত অভিযোগসমূহ দুদকের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিভাগীয় কর্মকর্তা, স্থানীয় জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের মাধ্যমে তদন্ত পূবর্ক ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়।

মাগুরা জেলা জাসদের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা | Magura News

মাগুরানিউজ.কমঃ 

বিশেষ প্রতিবেদক-

বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ অহিদুল ইসলাম ফনীকে সভাপতি ও সমীর চক্রবর্তীকে সাধারণ সম্পাদক করে আগামী তিন বছরের জন্যে ৫৫ সদস্য বিশিষ্ট মাগুরা জেলা জাসদের পুর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটিতে সহসভাপতি হিসেবে রয়েছেন মিয়া ওয়াহিদ কামাল বাবলুকাজী জিন্নাতুল নূরদেলোয়ার হোসেন দিলুবীর মুক্তিযোদ্ধা বিমল বিশ্বাস এবং মোঃ আতিয়ার রহমান জোয়ার্দার।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব প্রাপ্ত হয়েছেন মোঃ খলিলুর রহমান। কমিটির অন্যান্য পদে রয়েছেন- এড. মিজানুর রহমান (সাংগঠনিক সম্পাদক)আনিসুর রহমান (কোষাধ্যক্ষ)মুন্সী আবদুল হাকিম (দফতর সম্পাদক)নূরুল আমিন বিশ্বাস (প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক)আবুল হোসেম মোল্লা (সমবায় সম্পাদক),  মনোরঞ্জন মন্ডল (সমাজসেবা সম্পাদক)এড. আমেনা বেগম লাবনী (নারী বিষয়ক সম্পাদক)শুকুর আল মামুন (সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক)শাহিনুর রহমান মুন্না (শ্রমিক ও কৃষি শ্রমিক বিষয়ক সম্পাদক)মশিয়ার রহমান (কৃষি সম্পাদক)অধ্যাপক শ্যাম অধিকারী ( শিক্ষা সম্পাদক)এড. কাজী লুৎফর রহমান (আইন বিষয়ক সম্পাদক)মাসুদুর রহমান (স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক)মীর আব্দুর রাজ্জাক রাজা(স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক)নিরাপদ বিশ্বাস (সংখ্যালঘু ও আদিবাসী বিষয়ক সম্পাদক)বি এ হাকিম ( পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক)। আকবর হোসেন সর্দার সহসম্পাদক হিসেবে রয়েছেন- এড. তসলিমা আকতার পপিমোঃ ওবায়দুল ইসলামঅধ্যাপক প্রখর রঞ্জন বিশ্বাসতন্দ্রা অধিকারীআকবর হোসেন সর্দার।

সদস্য হিসেবে রয়েছেন জাহিদুল আলমজাহিদ রহমানআবু হানিফ মোল্লামুন্সী মইনুর ইসলামরহমত আলীমুন্সী হেদায়েতুল ইসলামঅঞ্জলী বিশ্বাসঅপর্ণা রায়এড. দিলীপ রায়উৎপল অধিকারীফারুক হোসেন বিশ্বাসঅলিয়ার রহমানগিরিন মন্ডলসুনীল বিশ্বাস।

এ ছাড়া উপজেলা কমিটি ও পৌর কমিটিসমূহের প্রতিনিধি হিসাবে মাগুরা জেলা কমিটিতে অন্তভর্ক্ত হয়েছেন আজিজুর রহমান (পৌরসভা)বেলাল হোসেন (পৌরসভা)রমন চক্রবর্তী ( সদর)তৌহিদ উজ্জামান (সদর)ইমারত হোসেন (শ্রীপুর)মোহিত সেন (শ্রীপুর)বিপুল সরকার (শালিখা)শেখ মাফিউল ইসলাম (শালিখা)সুমিত সাহা (মহম্মদপুর)আমিনুল ইসলাম মাসুদ (মহম্মদপুর)।

গত ৯ নভেম্বর শনিবার মাগুরার শেখ কামাল ইনডোর স্টেডিয়ামে মাগুরা জেলা জাসদের বণার্ঢ্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ১৪ দলের অন্যতম রুপকারজাসদের সভাপতিসাবেক মন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাসদের কার্যকরি সভাপতি অ্যাডভোকেট রবিউল আলম। এ ছাড়াও অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন জাতীয় নারী জোটের আহবায়ক এবং জাসদের সহ-সভাপতি আফরোজা হক রীণাজাসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান চুন্নুযুগ্ম সাধারণ সম্পাদক  রোকনুজ্জামান রোকনমাগুরা জেলা সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক মিয়া ওয়াহিদ কামাল বাবলুযুগ্ম আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন দিলুসহ বিভিন্ন জেলার নেতৃবৃন্দ। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য জাহিদুল আলম।

মাগুরাবাসিকে গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান | Magura News

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক-

দেশে লবণের পর্যাপ্ত পরিমাণে মজুত রয়েছে উল্লেখ করে লবণ নিয়ে ছড়ানো গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য মাগুরাবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে মাগুরা জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার ডিসি মাগুরার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে এক বার্তায় এ আহ্বান জানানো হয়েছে।

অপরদিকে, মঙ্গলবার শিল্প মন্ত্রণালয় থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘দেশে প্রতি মাসে ভোজ্য লবণের চাহিদা কম-বেশি ১ লাখ মেট্রিক টন। অন্যদিকে লবণের মজুত আছে সাড়ে ৬ লাখ মেট্রিক টন’।  

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, লবণের সংকট তৈরি করে বেশি মুনাফা লাভের আশায় একটি স্বার্থান্বেষী মহল গুজব ছড়িয়ে লবণের দাম বাড়িয়ে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করার অপচেষ্টা করছে।

এতে আরও বলা হয়, দেশে বর্তমানে সাড়ে ৬ লাখ মেট্রিক টনের বেশি ভোজ্য লবণ মজুত রয়েছে। এর মধ্যে কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের লবণ চাষিদের কাছে ৪ লাখ ৫ হাজার মেট্রিক টন এবং বিভিন্ন লবণ মিলের গুদামে ২ লাখ ৪৫ হাজার মেট্রিক টন লবণ মজুত রয়েছে। এছাড়া সারা দেশে বিভিন্ন লবণ কোম্পানির ডিলার,পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতাদের কাছে পর্যাপ্ত পরিমাণে লবণ মজুত রয়েছে।

পাশাপাশি চলতি নভেম্বর মাস থেকে লবণের উৎপাদন মৌসুম শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া ও মহেশখালী উপজেলায় উৎপাদিত নতুন লবণও বাজারে আসতে শুরু করেছে।

উল্লেখ্য, লবণ সংক্রান্ত বিষয়ে তদারকির জন্য শিল্প মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) প্রধান কার্যালয়ে ইতিমধ্যে একটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। যে কোনো তথ্যের প্রয়োজনে ০২-৯৫৭৩৫০৫ (ল্যান্ড ফোন), ০১৭১৫-২২৩৯৪৯ (মোবাইল) কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে যোগাযোগের করতে বলা হয়েছে।

মহম্মদপুরে বিদ্যুতায়িত হয়ে গৃহবধূর মৃত্যু

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক-

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার দ্বাতিয়াদহ গ্রামে ঘরের মেঝে পরিস্কার করতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে মঙ্গলবার সকালে রূপালি খাতুন নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। সে ওই গ্রামের জয়নাল বিশ্বাসের স্ত্রী।

পরিবারিক সূত্রে জানা গেছে, রূপালি (২২) সকালে ঘরের মেঝে পরিস্কার করতে গেলে সেখানে পড়ে থাকা বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে যান। এ সময় বিদ্যুতায়িত হয়ে গুরুতর আহত হন। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিত্সক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে মহম্মদপুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে।

কামড়িয়ে শিক্ষকের ঠোঁট ছিঁড়লেন অপর শিক্ষক

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক- 

মাগুরার শালিখায় পরীক্ষা চলাকালে নিজ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বেয়াদব বলে তিরস্কার করায় শ্রীপতি বিশ্বাস নামে এক শিক্ষকের ঠোঁট কামড়িয়ে ছিঁড়ে নিয়েছে উজ্জ্বল মজুমদার নামে অপর শিক্ষক। সোমবার সন্ধ্যায় শালিখা উপজেলার ধনেশ্বরগাতি বাজারে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর জখম অবস্থায় শ্রীপতি বিশ্বাসকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত শ্রীপতি বিশ্বাস শালিখা উপজেলার নাঘোষা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং উজ্জ্বল মজুমদার একই উপজেলার মশাখালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক।

স্থানীয়রা জানান, শালিখা উপজেলার মশাখালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা একই উপজেলার থৈপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এবারের পিএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। থৈপাড়া পরীক্ষা কেন্দ্রের যে কক্ষে মশাখালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিচ্ছে সেখানে সোমবারের বাংলা পরীক্ষায় দায়িত্ব পালন করেন নাঘোষা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শ্রীপতি বিশ্বাস। কিন্তু পরীক্ষা চলাকালে কক্ষের মধ্যে উচ্চস্বরে কথা বলায় দায়িত্বরত শিক্ষক শ্রীপতি বিশ্বাস তাদের বেয়াদব বলে গালমন্দ করেন। পরীক্ষা শেষে এই বিষয়টি নিয়ে শিক্ষার্থীরা তাদের স্কুলের শিক্ষক উজ্জ্বল মজুমদারের কাছে নালিশ করে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে উজ্জ্বল মজুমদার ধনেশ্বরগাতি বাজারে শ্রীপতি বিশ্বাসকে পেয়ে হামলা চালান।

মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিক্ষক শ্রীপতি বিশ্বাস বলেন, মশাখালি স্কুলের শিক্ষক উজ্জ্বলের সঙ্গে আমার কাকা-ভাস্তের সম্পর্ক। কোনোরকম বিরোধ নেই। অথচ তার স্কুলের ছেলে মেয়েদের বকাঝকা করেছি এতেই আমার মুখে কামড় দিয়ে ঠোঁট ছিঁড়ে ফেলেছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক উজ্জ্বল মজুমদারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, শ্রীপতি শুধু শিক্ষার্থীদের বেয়াদবই বলেননি। স্কুলের শিক্ষকদেরও বেয়াদব বলে গালমন্দ করেছেন। তবে কামড়িয়ে ঠোঁট ছিঁড়ে ফেলার বিষয়টি অস্বীকার করে তিনি বলেন, মারামারির সময় পড়ে গিয়ে কেটে যেতে পারে।

মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক অমর প্রসাদ বিশ্বাস বলেন, রোগীর মুখে অনেকটা জায়গাজুড়ে ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। হাসপাতালে ভর্তির পর তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তবে অবিলম্বে জরুরী অস্ত্রোপচার করা প্রয়োজন।

এ বিষয়ে শালিখা থানার ওসি তরিকুল ইসলাম বলেন, শুধু পরীক্ষা কেন্দ্রের ঘটনায় নয়, উভয়ের মধ্যে ব্যক্তিগত বিরোধের জের ধরেই রক্তারক্তির ঘটনা ঘটেছে। অভিযোগ পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মাগুরায় বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক-

পেয়াজসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ ও দলীয় চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তির দাবিতে মাগুরা জেলা বিএনপি বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

দেশব্যাপী কর্মসূচীর অংশ হিসাবে সোমবার সকাল ১১টায় মাগুরা জেলা বিএনপির ব্যানারে জাতীয়তাবাদী যুবদল, ছাত্রদল এবং স্বেচ্ছাসেবকদলের নেতাকর্মীরা সদর উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বের করে। এ সময় পুলিশের বাধায় তারা মিছিলটি শেষ করে সেখানেই সমাবেশ করে।

জেলা বিএনপির আহবায়ক আলী আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি সদস্য সচিব আকতার হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক খান হাসান ইমাম সুজা, আলমগীর হোসেনসহ অন্যান্যরা।

এ সময় বক্তারা অভিলম্বে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মুল্য নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি বেগম খালেদা জিয়াকে নি:শর্ত মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি আহবান জানান।

একসঙ্গে তিন সন্তানের জন্ম দিলেন এক গৃহবধূ

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক-

মাগুরার এক গৃহবধূ তিন সন্তানের জন্ম দিলেন। গত সপ্তাহে জেলার মহম্মদপুর উপজেলার বাবুখালী ইউনিয়নের হরিণাডাঙ্গা গ্রামে মাহবুব আলমের স্ত্রী রশিদা বেগম সিজারিয়ানের মাধ্যমে তিনটি পুত্র সন্তান জন্ম দেন।

এ সপ্তাহের শুরুতে আবারো এক গৃহবধূর কোল জুড়ে এলো তিন সন্তান।

তিন সন্তানের মাতা রুমা খাতুন মাগুরা সদরের বেঙ্গা বেরইল গ্রামের ওবায়দুর রহমানের স্ত্রী।

রমা খাতুনের স্বজনদের নিকট থেকে জানা যায়, শুক্রবার প্রসব বেদনা নিয়ে রুমা খাতুনকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়া হয়। সেখানে গতকাল (১৫ নভেম্বর) বিকালে তিন সন্তানের জন্ম হয়।

নরমাল ডেলিভারীতে তিন সন্তানের মধ্যে দুটি পুত্র সন্তান এবং একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

স্বজনরা জানান, ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে তিন সন্তানসহ মাতা রুমা খাতুন সুস্থ্য আছেন। দু’একদিনের মাধ্যেই তারা সন্তানগুলো নিয়ে মাগুরা চলে আসবেন।

মাগুরার মুখপত্র ‘মাগুরা নিউজ’

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক-

মাগুরার প্রথম ডিজিটাল গণমাধ্যম ‘মাগুরা নিউজ’ এখন মাগুরার মুখপত্রে পরিনত হয়েছে এমনটাই দাবি মাগুরার উন্নয়নকামী গণমানুষের। মাগুরাকে এগিয়ে নিতে মাগুরা নিউজের প্রচেষ্টা প্রশংসা যোগ্য, এমনটাই দবি বিশিষ্টজনদের। সবাই মিলে মাগুরাকে সমৃদ্ধ করার অভিযাত্রায় সঙ্গী হোন আপনিও। মাগুরার সশবপ্ন-সম্ভাবনা বা অসংগতি নিয়ে লিখুন। বদলে দিন প্রিয় মাগুরাকে।

মাগুরাকে নিয়ে আপনার চিন্তা, অভিমত, পর্যবেক্ষণ ও বিশ্লেষণ। স্বচ্ছ ও শুদ্ধ বাংলায় যেকোনো একটি সুনির্দিষ্ট বিষয়ে সর্বোচ্চ ৩০০ শব্দের মধ্যে লিখে পাঠিয়ে দিন। আপনার লেখা মনোনীত হলে প্রকাশিত হবে।

লেখা পাঠানোর ঠিকানা –
নাগরিক কলাম, সম্পাদকীয় বিভাগ, ”মাগুরা নিউজ” maguranewsbd@gmail.com ঠিকানায়। ফেসবুক পেজে ইনবক্স করতে পারবেন।

আগামী ৭দিন পেঁয়াজ বন্ধ!

মাগুরানিউজ.কমঃ

বিশেষ প্রতিবেদক-

বিপাকে আম জনতা। পেঁয়াজের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধিতে চরম ভোগান্তি। সিন্ডিকেটের কারসিজিতেই লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধি এমনটাই দাবি। সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দিলেই সমস্যা মিটবে। আর যেহেতু পেঁয়াজ একটি পচনশীল দ্রব্য তাই ভোক্তাসকলই পারি এ সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দিতে। এমনটাই দাবি আমজনতার। পণ করতে হবে আগামি ৭ দিন কোনো পেঁয়াজ কিনব না। পেঁয়াজ ছাড়াই খাবার রান্না করবো। একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে আমরা মাত্র ৭দিন পেঁয়াজ না কিনলেই দুষ্ট চক্রের কারসাজি ভেস্তে যাবে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই দেশী নতুন পেঁয়াজ বাজারে এসে যাবে। তখন চাইলেও সিন্ডিকেট কিছুই করতে পারবেনা।

মহম্মদপুরে তোলপাড়, বিলের মধ্যে অজ্ঞাত নারীর লাশ

মাগুরানিউজ.কমঃ বিশেষ প্রতিবেদক-

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার ইছামতী বিল থেকে এক নারীর গলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উপজেলার নহাটা ইউনিয়নের মোবারকপুর গ্রামের বিল এলাকা থেকে আজ শুক্রবার বেলা একটার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

তাৎক্ষণিকভাবে মরদেহের পরিচয় জানতে পারেনি পুলিশ।

মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারক বিশ্বাস বলেন, আজ বেলা ১১টার দিকে স্থানীয় ব্যক্তিদের কাছ থেকে পুলিশ মরদেহটির বিষয়ে খবর পায়। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে বিলের মধ্যে থাকা একটি ঝোপে মরদেহটি পড়ে থাকতে দেখে। লাশটিতে পচন ধরেছে। ধারণা করা হচ্ছে, কয়েক দিন আগে তাঁকে মেরে এখানে ফেলে রাখা হয়েছে। লাশে পচন ধরায় তাঁর বয়সও বোঝা যাচ্ছে না। তবে ৩০ বছরের বেশি বলে ধারণা করা হচ্ছে। মরদেহটির পরিচয় জানতে আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় যোগাযোগ করা হচ্ছে।

ওসি বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা করা হবে বলেও জানান তিনি।

ছবি-সংগ্রহ।