আজকের পত্রিকাtitle_li=বাংলাদেশ মাগুরাতে চলছে ১৬৯ কোটি টাকার বিভিন্ন প্রকল্পের উন্নয়ন কাজ

মাগুরাতে চলছে ১৬৯ কোটি টাকার বিভিন্ন প্রকল্পের উন্নয়ন কাজ

মাগুরানিউজ.কমঃ

বিশেষ প্রতিবেদক-

মাগুরা জেলায় ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) অধিনে ৮টি প্রকল্পের আওতায় ১৬৯ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে। এ সব প্রকল্পের কাজ শেষ হলে টেকসই সড়ক উন্নয়ন হবে এবং পাশাপাশি গ্রামীণ অর্থনীতি চাঙ্গা রাখতে একটি শক্তিশালি নেটওয়ার্ক তৈরি হবে বলে সংশ্লিস্ট অফিস সুত্রে জানা গেছে।

জানা গেছে, উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়কে দীর্ঘ সেতু নির্মাণ প্রকল্প , বৃহত্তর যশোর জেলা অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প ও সাসটেইবেল রুরাল ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইমপ্রুভমেন্ট প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৯১ কোটি টাকা ব্যয়ে ৭টি ব্রীজের নির্মাণ কাজ চলছে।

এর মধ্যে উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়কে দীর্ঘ সেতু নির্মাণ প্রকল্পের অধিনে মহম্মদপুর উপজেলার এলাংখালি ঘাটে মধুমতি নদীর উপর ৫৯ কোটি ৯০ টাকা ব্যয়ে ৬০০.৭০ মিটার ‘শেখ হাসিনা সেতুর নির্মাণ কাজ চলছে। ইতোমধ্যে এ সেতুর প্রায় ৮৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।

বৃহত্তর যশোর জেলা অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় শালিখা উপজেলাধীন বুনাগাতি-বেরইল পলিতা সড়কে নালিয়ার ঘাটে ফটকি নদীর উপর ৩ কোটি ৫৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ৯৬ মিটার দীর্ঘ সেতু নির্মাণ কাজ চলছে।

একই প্রকল্পের আওতায় শালিখা উপজেলাধীন বাউলিয়া হতে শরশুনা চিত্রা নদীর উপর ৭ কোটি ৩৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ৯৬ মিটার দীর্ঘ সেতু নির্মিত হচ্ছে। এ ছাড়া ওই প্রকল্পের আওতায় বরইচার-আটিরভিটা হতে বরইচারা বাজার সড়কে ফটকী নদীর উপর বরইচারা ঘাটে ৪ কোটি ৬১ লাখ টাকা ব্যয়ে ৬৬ মিটার দীর্ঘ সেতুর নির্মাণ কাজ চলছে। এসব সেতুর প্রায় ৮৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।

প্রকল্পের আওতায় সদর উপজেলাধীন আঠারখাদা-মঠবাড়িয়ায় নবগঙ্গা নদীর উপর ৫৪ মিটার ব্রিজ নির্মাণ কাজ চলছে। সদর উপজেলার মশাখালী- নটাপড়া ফটকী নদীর উপর ২ কোটি ১৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ৫১ মিটার সেতু নির্মাণ হচ্ছে। এ দুটি সেতুর নির্মাণ কাজও শেষ পর্যায়ে রয়েছে।

৯টি ব্রিজ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় সদর উপজেলাধীন জেটিসি সড়কের পারনান্দুয়ালী ব্যাপারি পাড়া খেয়া ঘাটে নবগঙ্গা নদীর উপর ৯ কোটি ৯৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ১৭৫ মিটার সেতু নির্মিত হচ্ছে। যার ৯৩ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।

এ ছাড়া ১৬-১৭ অর্থ বছরের জেলার বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে পল্লী সড়ক ও কালর্ভাট নির্মাণ কর্মসূচি’র আওতায় প্রায় ৬৬ কোটি টাকা ব্যয়ে ১২০ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণের কাজ বর্তমানে চলমান রয়েছে এবং ৭৫ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কার করা হয়েছে।

এ ছাড়া একই অর্থ বছরে জেলার ৩ উপজেলা শ্রীপুর, শালিখা এবং মহম্মদপুরে ৬ কোটি ২১ লাখ টাকা ব্যয়ে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধাদের ভবন নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় ৩টি মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে।

এ ছাড়া ২ কোটি ৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ভূমিহীন ও অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য নির্মাণ ২৫টি বাস স্থান নির্মিত হচ্ছে। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গ্রামীণ সড়ক ও হাট-বাজার অকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ২ কোটি ৫৬ লাখ টাকা ব্যয়ে জেলার ৮টি হাট-বাজার নির্মাণ ও সংস্কার করা হচ্ছে।

জেলার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মীর্জা মো: ইফতেখার আলী জানান, সরকারের ভিশন-২০২১ বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে কাজ করছে এলজিইডি। এ লক্ষে জেলার চার উপজেলায় বর্তমান সরকারের বিগত বছরগুলোতে ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করা হয়েছে। উন্নয়নের এ ধারাবাহিকতায় ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে বিভিন্ন প্রকল্পের আওয়ায় ১৬৯ টাকার উন্নয়ন কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। অল্প কিছু দিনের মধ্যে এসব উন্নয়ন কাজ শেষ হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« আগ    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

মাগুড়া সদর

ফেসবুকে আমরা

বিভাগ

দিনপঞ্জিকা

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« আগ    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

রাজনীতি

অর্থনীতি