আজকের পত্রিকাtitle_li=বাংলাদেশtitle_li=মাগুরা সদর মাগুরায় লাখ লাখ মানুষের দু’হাত তুলে সমর্থন

মাগুরায় লাখ লাখ মানুষের দু’হাত তুলে সমর্থন

মাগুরানিউজ.কমঃ

রাজীব মিত্র জয় –

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ-দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণে আবারও নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে দেশসেবার সুযোগ দেয়ার জন্য মাগুরাসহ দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার বিকালে বীর মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান ষ্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিশাল জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী আবারও নৌকা মার্কায় ভোট চাইলে লাখ লাখ মানুষ দুহাত তুলে তাকে সমর্থন জানান।

প্রধানমন্ত্রী তার বক্তৃতায় বলেন, যারা ভোট চুরি করে ক্ষমতায় আসে তারা আবার দেশের ক্ষমতায় এলে দেশকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘ভোট চুরির অপরাধে জনগণ যাদের ক্ষমতা থেকে হটিয়েছে তারা আবারও ক্ষমতায় এলে দেশকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যাবে। কারণ তারা স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের ওয়াদা ছিল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করা। আমরা তা কার্যকর করেছি। এই বাংলায় যারা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের সৃষ্টি করেছে তাদের স্থান বাংলার মাটিতে হবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি আল্লাহ ছাড়া কাউকে ভয় পায় না, কাউকে পরোয়া করি না। কারও কাছে মাথা নত করি না। বাবার আদর্শ নিয়ে দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য জীবন উৎসর্গ করবো, যেকোনও ত্যাগ স্বীকার করতে আমি প্রস্তুত। বাবার মতো বুকের রক্ত দিয়ে আপনাদের সেবা করবো এটাই আমার প্রতিজ্ঞা।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনারা আওয়ামী লীগের পতাকাতলে সমবেত হোন, আওয়ামী লীগের হাতকে শক্তিশালী করুন।  আশা করি ২০১৯ সালের নির্বাচনেও নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে সেবা করার সুযোগ দেবেন। আমাদের লক্ষ্য উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ গড়ে তোলা। সেই লক্ষ্যেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘২০২১ সালে বাংলাদেশের কোনও ঘর অন্ধকার থাকবে না। প্রত্যেক ঘরে বিদ্যুৎ যাবে। দেশ যাতে দ্রুত উন্নয়নের পথে এগিয়ে যায় সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। বাংলাদেশের প্রত্যক জেলাকে আমরা ভিক্ষুকমুক্ত করবো। সেই ব্যবস্থা করছি। সামাজিক নিরাপত্তার জন্য কাজ করছি।’

তিনি বলেন, ‘মাগুরায় আমি খালি হাতে আসিনি। উপহার নিয়ে এসেছি। মাগুরাবাসীর দাবি, তারা নাকি রেল লাইন দেখেনি, রেল লাইন দিতে হবে। রেল লাইন যাতে হয় ইনশাল্লাহ সে ব্যবস্থা করবো।’

ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সাকিবের জন্ম এ মাগুরায়। গতকাল শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে জয় ছিনিয়ে এনেছে। এ জন্য মাগুরাবাসীকে অভিনন্দন। কারন সে মাগুরার সুযোগ্য সন্তান।’

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তানজেল হোসেন খানের সভাপতিত্বে জনসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এ্যাড. পিযুষ কান্তি ভট্টাচার্য, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফ এমপি, আবদুর রহমান এমপি, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. বীরেন শিকদার, বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদহ আহমেদ পলক, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) আবদুল ওয়াহ্হাব, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য এসএম কামাল হোসেন ও পারভীন জামান কল্পনা, আওয়ামী মহিলা লীগের সভাপতি শাফিয়া খাতুন, যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার, সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি নির্মল চ্যাটার্জি, যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা আনোয়ার হোসেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি এসএম জাকির হোসেন, মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ কুন্ডু প্রমুখ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. শফিকুজ্জামান বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক খুরশিদ হায়দার টুটুল প্রমুখ।

বেলা ৩টা ২০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী জনসভার মঞ্চে আসেন। ৩টা ৪৫ মিনিটে বক্তব্য শুরু করেন।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাগুরার বীর মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান স্টেডিয়ামের ফলক উন্মোচনসহ ১৫০ কোটি ৩১ লাখ টাকা ব্যয়ে সম্পন্ন ১৯টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। একইসঙ্গে তিনি ১৭৭ কোটি ১১ লাখ টাকা ব্যয়ে ৯টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

জনসভায় মাগুরার সন্তান ও প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সহকারী সচিব এ্যাড. সাইফুজ্জামান শিখর মাগুরাবাসীর পক্ষ থেকে জেলায় রেল লাইন, একটি মেডিক্যাল কলেজ, জরাজীর্ণ আইনজীবী সমিতি ও  প্রেসক্লাবের নতুন ভবন নির্মাণের দাবি করেন। এসময় তিনি প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, ‘আজকাল পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে কোনও জেলায় রেল লাইন নেই? এমন প্রশ্ন আসে।’

এর আগে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী হিসেবে ২০০৮ সালে মাগুরাতে এক নির্বাচনী সভায় বক্তৃতা করেন শেখ হাসিনা। আর প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তিনি সর্বশেষ মাগুরা সফর করেছেন ১৯৯৭ সালে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« আগ    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

মাগুড়া সদর

ফেসবুকে আমরা

বিভাগ

দিনপঞ্জিকা

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« আগ    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

রাজনীতি

অর্থনীতি