আজকের পত্রিকাtitle_li=মহম্মদপুর শেখ হাসিনা সেতু, স্বপ্নপূরণের দ্বারপ্রান্তে মহম্মদপুরবাসী

শেখ হাসিনা সেতু, স্বপ্নপূরণের দ্বারপ্রান্তে মহম্মদপুরবাসী

মাগুরানিউজ.কমঃ

রাজীব মিত্র –

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার মধুমতি নদীর উপর এলাংখালী-জাঙ্গালিয়া এলাকায় ‘শেখ হাসিনা’ সেতুর কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যে এটির ৯৫ শতাংশ নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। কাঙ্খিত এ সেতু জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত হলে মাগুরা, নড়াইলসহ অত্র এলাকার মানুষ ফরিদপুর হয়ে ঢাকার সাথে যোগাযোগ সহজতর হবে। সেই সঙ্গে এসব এলাকার মানুষের জীবনমান উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।

জেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) সূত্রে জানা গেছে, ‘উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়কে দীর্ঘ সেতু নির্মাণ প্রকল্পের’ অধিনে মহম্মদপুর উপজেলার এলাংখালি-জাঙ্গালিয়া ঘাটে মধুমতি নদীর উপর ৫৯ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৬০০.৭০ মিটার ‘শেখ হাসিনা সেতুর নির্মাণ কাজ চলছে।

২০১৩ সালের ৭ নভেম্বর মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার এ সেতুর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন। ২০১৪ সালের ১৩ নভেম্বর ম্যাক্স-রেনকিন নামের ঠিাকাদারী প্রতিষ্ঠান সেতুটি নির্মাণের কার্যাদেশ পান। ২০১৫ সালের মার্চ মাসে মাটি পরীক্ষা ও টেষ্ট পাইল বসানো হয়। এরপর একই বছরের এপ্রিল মাস থেকে মূল সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। চলতি বছরের সেপ্টেম্বও মাসের মধ্যে সেতুটির নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে আশা করছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, মধুমতি নদীর দুই পাড়ে নির্মাণ কাজ চলছে। সেতুটি ঘিরে স্থানীয় এলাকাবাসীর মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার সৃষ্টি হয়েছে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে সেতু নির্মাণে শ্রমিকরা রাত-দিন কাজ করে যাচ্ছে। নির্মাণ কাজ দেখতে প্রতিদিন শত-শত মানুষ সেতুর দুই পাড়ে ভিড় জমাচ্ছেন।

সেতু নির্মাণের দায়িত্বে নিয়োজিত ম্যাক্স-রেনকিন নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশলী রনজিৎ পাল জানান, শেখ হাসিনা সেতুর প্রায় ৯৫ শতাংশ কাজ ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে। বর্তমানে সেতুর এলাংখালি ও জাঙ্গালিয়া এলাকার দুই পাশে প্রায় ২ কিলোমিটার সংযোগ সড়কের কাজ চলছে। আগামী সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে এটির নির্মাণ কাজ শেষ হলে কর্তৃপক্ষের কাছে উদ্বোধনের জন্য হস্তান্তর করা সম্ভব হবে।

জেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) নির্বাহী প্রকৌশলী মীর্জা মো. ইফতেখার আলী জানান, জেলার মহম্মদপুর উপজেলার মধুমতি নদীর উপর নির্মিত ‘শেখ হাসিনা সেতু’র নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে সেতুটির নামকরন হওয়ায় এটি নিয়ে স্থানীয় জনসাধারণের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দিপনার সৃষ্টি হয়েছে।

মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার শেখ হাসিনা সেতু সর্ম্পকে বলেন, ‘মহম্মদপুর উপজেলার মধুমতি নদীর উপর একটি সেতু নির্মাণের দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন ও দাবি ছিল উপজেলাবাসির। তাদের সে স্বপ্ন পূরণ হওয়ায় মহম্মদপুরবাসি অত্যন্ত আনন্দিত। সেতুটি জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে করার জন্য তিনি আবেদন করলে তা মঞ্জুর হয়। সেতুটি নির্মাণের ফলে মহম্মদপুর বাসির দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন পূরণ হবার পথে।

– ছবি সংগ্রহ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সেপ্টেম্বর ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« আগ    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  

মাগুড়া সদর

ফেসবুকে আমরা