আজকের পত্রিকাtitle_li=বাংলাদেশtitle_li=সম্পাদকীয় মাগুরার কামারখালী ব্রিজে ফাটল

মাগুরার কামারখালী ব্রিজে ফাটল

মাগুরানিউজ.কমঃ

pak201411031855jh06

গড়াই নদী থেকে দীর্ঘদিন ধরে বালু উত্তোলনের কারণে মাগুরার শ্রীপুরের রাজধরপুর গ্রামে জাতীয় বিদ্যুৎ গ্রিডের নদীতীরবর্তী টাওয়ারের গোড়ার মাটি সরে হুমকির মুখে পড়েছে। একই কারণে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের কামারখালী ব্রিজের মাগুরা অংশে দুটি পিলারে ফাটল সৃষ্টি হয়েছে। নদীভাঙন ও বালু উত্তোলন অব্যাহত থাকলে ব্রিজটিও হুমকির মুখে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী।

সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, নদী তীরবর্তী রাজধরপুর গ্রামে অবস্থিত জাতীয় বিদ্যুৎ গ্রিডের সঞ্চালন লাইনের বৃহদাকার টাওয়ারটির অবস্থা নড়বড়ে হয়ে পড়েছে। নদী থেকে বালু উত্তোলনের কারণে নিচের স্তরের মাটি সরে যাচ্ছে। এ গ্রামের গোলাম মওলা, আবদুল হাকিম ও শাহজাহানসহ অন্তত ১০টি পরিবারের বসতবাড়ি ছেড়ে অন্যখানে সরে গেছে।

তারা জানান, দীর্ঘদিন ধরে এ এলাকা থেকে বালু উত্তেলনের কারণে মাটির স্তর সরে গেছে। এ কারণে এ গ্রামে অবস্থিত বিদ্যুতের টাওয়ার ও কামারখালি ব্রিজের পাশ থেকে মাটি সরে যাওয়ায় দুর্ঘটনার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। ব্রিজটিও হুমকির মুখে পড়েছে বলে জানান এলাকাবাসী। এ কারনে  দ্রুত বালু উত্তোলন বন্ধের দবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

এদিকে ভাঙন তীব্রতর হওয়ায় বিলীন হয়ে গেছে ওই এলাকার মাঝআইল শেখপাড়া, রাজধরপুর, কালিনগর গ্রামের শতাধিক বসতবাড়ি, আবাদী জমি ও বনজ-ফলের বাগান।

এছাড়া প্রতিবছরই এভাবে নদীর ভাঙনে ফসলের জমি নদীতে মিশে যাচ্ছে। বালু কাটা বন্ধ হলে এ ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব হবে। সেই সাথে নদীর এপাড়ে বাঁধ অথবা স্পার্ক বাঁধ দিয়ে স্রোতের গতি পরিবর্তন করে এ ভাঙন রোধ করা যেতে পারে।

এ ব্যাপারে নাকোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ শাহজাহান মিয়া জানান, বিষয়টি মাগুরার জেলা প্রশাসক, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী, শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানানো হবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« আগ    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

মাগুড়া সদর

ফেসবুকে আমরা

বিভাগ

দিনপঞ্জিকা

সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« আগ    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

রাজনীতি

অর্থনীতি