আজকের পত্রিকাtitle_li=স্বাস্থ্য ফরমালিন মুক্ত খাবার চেনার উপায়

ফরমালিন মুক্ত খাবার চেনার উপায়

 কিভাবে চিনবেন ফরমালিন আছে কি না ?images

  • ফরমালিনযুক্ত মাছ চেনার কিছু উপায় নিম্নে দেওয়া হল- ১) মাছের দেহ শক্ত হয়ে যায় । যার জন্য আমরা কেনার সময় ভাবি ,আছ তাজা আছে । কিন্তু মাছ শক্ত হওয়া মানে বুঝতে হবে ফরমালিন মেশানো পানিতে মাছ গুলুকে ডুবানো হয়েছে । ২) আইশ উজ্জ্বল না হয়ে ধুসর রঙের হয়ে যায় । ৩) ফুলকা ধুসর রঙের হয় । ৪) চোখের স্বাভাবিক রঙ নষ্ট হয়ে যায়, দেখা যায় ঘোলাটে ।এ সব দেখে মাছ কিনলে ফরমালিন মুক্ত মাছ পাওয়া যেতে পারে । কিন্তু বাজারের যেখানে প্রায় মাছেই ফরমালিন মেশানো হয় তাতে মনে হয় এ সব কিছু মনে রাখলেও কাজ হবে বলে মনে হয় না । আর এটা মেশানো হয় কাক ঢাকা ভোরে । বাজারগুলুতে মাছ আসার সাথে সাথে ফরমালিন মেশানো পানিতে চুপিয়ে তোলা হয় । তবে একটা ব্যাপার খেয়াল করলেই বুঝা যাবে ফরমালিন আছে কি না থথথ যেসব মাছে ফরমালিন ব্যাবহার করা হয় সেসব মাছে সাধারণত মাছি বসে না ।
  • মধু মাসের সবচেয়ে মজার ফলে কার্বাইড মিশিয়ে আম তাড়াতাড়ি পাকানো হচ্ছে, দীর্ঘদিন ধরে টাটকা রাখছে এবং শক্ত রাখছে । আর আমরা সেই ফলের সাময়িক মিষ্টিগন্ধ শুঁকে তারপরে কিনে বিষমাখা ফল খেয়ে তৃপ্তির ঢেঁকুর তুলছি । সম্প্রতি প্রকাশিত এক রিপোর্টে দেখা যায় বাগান থেকে আম পাড়ার পর কমপে ৫বার স্প্রে করা হয়। রাতে গুদাম বন্ধ করার আগে ফরমালিন স্প্রে করা হচ্ছে । ফলে ভোরে আমে ফরমালিন এর উপস্থিতি ল্য করা যায় না । তাছাড়া অতিরিক্ত তাপে ক্যালসিয়াম কার্বাইড মেশানো আম রাখলে তা ক্যালসিয়াম সায়ানাইডে পরিনত হতে পারে । যা আমাদের জীবনের জন্য স্পষ্ট হুমকি স্বরূপ । ফলে কার্বাইড মেশানোই অনেক ধরনের উপসর্গ পরিলতি হয় , যেমন ফল খুভ সুন্দর কালারে পরিনত হয়, তাছাড়া অনেক দিন ধরে সংরণের জন্য ও ফরমালিন ব্যাবহার করা হয় । কার্বাইড মুক্ত ফল চেনা অতটা কঠিন কিছু না , যেমন – প্রাকৃতিক ভাবে পাকা ফলের রঙ কিছুটা সবুজ কিছুটা হলুদ হয়ে থাকে ।কিন্তু কার্বাইড মেশানো ফল আগাগোড়ায় হলুদ হয়ে যায় । এছাড়াও ফরমালিন দেওয়া ফল খুভ সহজেই চেনা যায় প্রথমত এক ধরনের ঝাঁঝালো গন্ধ থাকবে ফলে । যা কেনার আগে নাকের কাছে আনলে পাওয়া যায় । তাছাড়া ফলের এক অংশে টক অন্য অংশে মিষ্টি হয় । আর সচাইতে বড় কথা হচ্ছে ফরমালিন যুক্ত আম ফ্রিজে না রাখলে নষ্ট হয়ে যাবে কিন্তু ফরমালিন না দেওয়া আম ফ্রিজে রাখলেই পচে যাবে এবং স্বাদ টক হয়ে যাবে । কিন্তু বাজারে যেখানে প্রায় সব ফলেই ফরমালিন ব্যাবহার করা হয় এর মাঝে ফরমালিন মুক্ত ফল পাওয়া খুব দুস্কর । এ থেকে পরিত্রান পেতে উন্নত পাকেজিং প্ল্যান্ট হাতে নেওয়া যায় যাতে কিছু দিন যাবত ফল সংরণ করা যায় । আলট্রাভায়োলেট রশ্মি দিয়ে আম জিবানমুক্ত করে প্যাকেট করা যেতে পারে । এবং সর্বোপরি দরকার ফল দীর্ঘদিন সংরণ করার বিজ্ঞানসম্মত উপায় আবিষ্কার করা ।
  • ইদানিং আরেকটা মারাত্মক ঘটনা হচ্ছে মুড়িতে ইউরিয়ার সাথে হাইড্রোজ মেশানো । এতে করে মুড়ির স্বাদ কমার সাথে সাথে এই বিষাক্ত মুড়ি খেয়ে আমাদের শরীরে ক্যান্সার ও আলসারের মত জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়াচ্ছি । রমাজান মাসে বাজারে ভেজাল মুড়ির যে সয়লাব হবে তাতে কোন সন্দেহ নেই । কিন্তু একটু সতর্ক থাকলে ভেজাল মুড়ি খাওয়া থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। ইউরিয়ার সাথে হাইড্রোজ মুড়ি গুলুর শরীরে অসংখ্য ছিদ্র থাকে এবং দেখতে খুব সাদা রঙের হয় । ইউরিয়াযুক্ত মুড়ি গুলু সাধারণত সাদা বর্ণের হয় তাছাড়া স্বাদ পানসে ধরনের হয় । এখন লিচুতে স্প্রে করা হয় যাতে করে লিচুর রঙ চকচকে দেখায় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জুন ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« মে    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  

মাগুড়া সদর

ফেসবুকে আমরা

Pages

ফেসবুকে আমরা

বিভাগ

দিনপঞ্জিকা

জুন ২০১৮
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« মে    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  

রাজনীতি

অর্থনীতি

Categories