অর্থনীতিtitle_li=বাংলাদেশ নতুন অর্থবছরের যাত্রা শুরু

নতুন অর্থবছরের যাত্রা শুরু

140619-bangladesh_govt_350_243আজ  থেকে নতুন অর্থবছরের যাত্রা শুরু

প্রবৃদ্ধি (জিডিপি প্রবৃদ্ধি) অর্জনের লক্ষ্যমাত্রা ৭ দশমিক ৩ শতাংশ নির্ধারণ করে মঙ্গলবার শুরু হচ্ছে ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছর। তবে এ অর্থ বছরে মূল্যস্ফীতির কোনো লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা না হলেও তা সহনীয় পর্যায়ে রাখার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে।
 
আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের টানা দ্বিতীয় মেয়াদের প্রস্তাবিত প্রথম বাজেট জাতীয় সংসদে পাস হয়েছে। 
 
২০১৪-১৫ অর্থবছরে পাস হওয়া বাজেটের আকার দুই লাখ ৫০ হাজার ৫০৬ কোটি টাকা। যার মধ্যে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে এক লাখ ৮২ হাজার ৯৫৪ কোটি টাকা। ফলে সামগ্রিক বাজেট ঘাটতি দাঁড়াচ্ছে ৬১ হাজার ৩৪৬ কোটি টাকা। অর্থাৎ মোট দেশজ উৎপাদনের তুলনায় ঘাটতি ধরা হয়েছে ৪ দশমিক ৫ শতাংশ।
 
তবে অনুদান বাদ দিলে ঘাটতি গিয়ে দাঁড়াবে ৬৭ হাজার ৫৫২ কোটি টাকায়। শতকরা হিসেবে যা ৫ শতাংশ। প্রস্তাবিত বাজেটে ছয় হাজার ২০৬ কোটি টাকার অনুদান পাওয়া যাবে বলে ধরা হয়েছে।
 
প্রবৃদ্ধি অর্জন ও মুদ্রাস্ফীতি কমানো ছাড়াও এ অর্থবছরের বড় চ্যালেঞ্জ দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ। এবার অর্থবছরের প্রথম মাসেই রোজা পড়েছে। সংযমের এই মাসে দ্রব্যমূল্য সহনীয় রাখতে সরকারিভাবে নানা উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। 
 
এই বাজেটে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) ধরা হয়েছে ৮০ হাজার ৩১৫ কোটি টাকা। তবে স্বায়ত্তশাসিত সংস্থার নিজস্ব অর্থায়নে এডিপিতে ৫ হাজার ৬৮৫ কোটি ৪৮ টাকার কর্মসূচি রয়েছে। সব মিলে ২০১৪-১৫ অর্থবছরের এডিপিতে মোট খরচ দেখানো হচ্ছে ৮৬ হাজার কোটি টাকা।

নতুন অর্থ বছরে অনুন্নয়ন ব্যয়ের পরিমাণ ধরা হয়েছে এক লাখ ৫৪ হাজার ২৪১ কোটি টাকা।
 
আগামী অর্থবছরের বাজেট ব্যয়ের বাইরে সরকারের বিভিন্ন ধরনের সংযুক্ত দায় মিলিয়ে মোট তিন লাখ ৮২ হাজার ৩৪০ কোটি ১ লাখ ২১ হাজার টাকার নির্দিষ্টকরণ বিল জাতীয় সংসদে কণ্ঠভোটে রোববার পাস হয়।
 
এর মধ্যে সাংসদদের ভোটে গৃহীত অর্থের পরিমাণ দুই লাখ ৩০ হাজার ৪১৭ কোটি ১০ লাখ ৯৪ হাজার টাকা এবং সংযুক্ত তহবিলের ওপর দায় এক লাখ ৫১ হাজার ৯২২ কোটি ৯০ লাখ ২৭ হাজার টাকা।
 
সংযুক্ত তহবিলের দায়ের মধ্যে ট্রেজারি বিলের দায় পরিশোধ, হাইকোর্টের বিচারপতি ও মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রককে বেতন ইত্যাদি দায় অন্তর্ভূক্ত রয়েছে।
 
মোট বাজেট ব্যয়ের মধ্যে বৈদেশিক অনুদান রয়েছে। সেই অনুদান বাদ দিয়ে রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে নির্দিষ্টকরণ অর্থ মঞ্জুরের জন্য সংসদে পাস করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ডিসেম্বর ২০১৭
সোম মঙ্গল বুধ বৃহঃ শুক্র শনি রবি
« নভে    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১

মাগুড়া সদর

ফেসবুকে আমরা

Pages